পাসওয়ার্ড কী ? কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করার নিয়ম ।

কেন কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করা প্রয়োজন

 কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করার নিয়ম – পরিবারের সবাই বাড়ির বাইরে বেড়াতে গেলে সাধারণত আমরা বাড়ির দরজায় তালা লাগিয়ে যাই। কেন? বাড়ির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য, তাই না। এখন একটু চিন্তা কর, তালা জিনিসটা আসলে কী? যে কেউ যেকোনাে চাবি দিয়ে তােমার বাড়ির তালাটি খুলতে পারে না। কারণ পৃথিবীর প্রত্যেকটি তালার জন্য ভিন্ন ভিন্ন চাবি রয়েছে। এক তালার চাবি দিয়ে অন্য একটি তালা খােলা যায় না। এভাবে আমরা তালা দিয়ে আমাদের বাড়িসহ অন্যান্য জিনিসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করি। এখন অবশ্য নম্বর দেওয়া এক ধরনের তালা দেখা যায়, যেখানে নম্বর মিলিয়ে তালাটি খুলতে হয়। এক্ষেত্রে নম্বরটি চাবির কাজ করে। কিন্তু ডিজিটাল প্রযুক্তির এ যুগে আরাে অনেক কিছুকিছু নিরাপত্তা নিয়ে আমাদের চিন্তা করতে হয়। তােমরা নিশ্চয়ই বুঝে ফেলেছ কীসের কথা বলেছি ।

নিরাপত্তা রক্ষার জন্য পাসওয়ার্ড এর ব্যাবহার

ঠিক ধরেছেন, আমরা আমাদের তথ্য ও উপাত্তের নিরাপত্তার কথা বলছি। আইসিটির এ যুগে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, উপাত্ত ও সফটওয়্যার নিরাপত্তায় এক ধরনের তালা দিতে হয়। এ তালার নাম পাসওয়ার্ড।

 

তােমরা অনেকে নিশ্চয়ই ইতােমধ্যে পাসওয়ার্ড তৈরি ও ব্যবহার করে ফেলেছ। তথ্য ও যােগাযােগ প্রযুক্তির ব্যবহার এখন সবখানে। আমাদের দেশও এর ব্যতিক্রম নয়। এর প্রসার যত বাড়ছে নিরাপত্তার প্রশ্নটি তত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। আমাদের ব্যক্তিগত সকল তথ্য যেমন ব্যাংক একাউন্ট, আয়করের হিসাব, চাকরির বিভিন্ন তথ্য ইত্যাদি ছাড়াও নানা তথ্য-উপাত্ত এখন ডিজিটাল ব্যবস্থার আওতায় আসছে। এছাড়াও আমাদের আইসিটি যন্ত্রপাতি যেমন- কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট কিংবা মােবাইল ফোনগুলাে সফটওয়্যার দ্বারা পরিচালিত হয়।

কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করার নিয়ম
কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করার নিয়ম

ইন্টারনেটে কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করার নিয়ম

আমরা যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করি তখন পৃথিবীর যেকোনাে প্রান্তের কম্পিউটার বা আইসিটি যন্ত্রের সাথে যােগযােগ করতে পারি। তেমনি অন্য যে কেউ আমাদের যন্ত্রের সাথে যােগাযােগ করতে পারে। তথ্য আদান-প্রদান করতে পারে। এর মাধ্যমে আমাদের ব্যক্তিগত গােপনীয় তথ্যও অন্যের কাছে চলে যেতে পারে কিংবা কেউ আমাদের যন্ত্রের সফটওয়্যারের ক্ষতি করতে পারে। এ অবস্থা থেকে রক্ষা পেতে আমাদের নিরাপত্তা প্রয়ােজন । এসব তথ্য ও আমাদের যন্ত্রের সফটওয়্যার সমূহ রক্ষা করতে পাসওয়ার্ডের কোনাে বিকল্প নেই। পাসওয়ার্ড দেওয়া থাকলে যে কেউ ইচ্ছা করলেই আমাদের তথ্য নিতে পারবে না বা ক্ষতি করতে পারবে না।

ছাত্রদের জন্য অনলাইন আয় করার উপায় ২০২২ – বাংলা টিউটোরিয়াল

সঠিকভাবে কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করার উপায়

তবে এখানে একটি কথা অবশ্যই জেনে রাখতে হবে যদি কেউ বুদ্ধি খাটিয়ে আমরা যে পাসওয়ার্ড দিয়েছিলাম তা ধরে ফেলতে পারে তাহলে সে আমাদের সকল তথ্য নিয়ে নিতে পারবে।

তথ্য নষ্ট করতে চাইলে নষ্ট করতে পারবে। অনেকটা ডুপ্লিকেট চাবি বানিয়ে তালা খুলে ফেলার মতাে। তাই পাসওয়ার্ড তৈরি করতে আমাদের অনেক দক্ষ হতে হবে। অন্য কেউ ধারণা করতে পারে এমন সহজ পাসওয়ার্ড যেমন তৈরি করা যাবে না আবার নিজেই ভুলে যেতে পারি এমন পাসওয়ার্ড তৈরি করা যাবে না।

যেভাবে একটি কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করতে হয়

বেশিরভাগ মানুষ 123456 বা 654321 বা abcdef এ ধরনের পাসওয়ার্ড তৈরি করে। ফলে পাসওয়ার্ড জেনে যাওয়া বা ধরে ফেলা সহজ হয়। যদিও অনেক ব্যবহারকারী অনন্য বা Unique যথা কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করাকে ঝামেলার কাজ মনে করে। তথ্য-উপাত্তের দিকটি বিবেচনায়ও নিলে Unique বা কঠিন পাসওয়ার্ড তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সার্ভার, কম্পিউটার বা যেকোনাে আইসিটি যন্ত্রে রক্ষিত তথ্য ও উপাত্তের নিরাপত্তা বিধানের সাথে সাথে গোপনীয়তা বজায় রাখার কাজটি ও পাসওয়ার্ড করে থাকে। আপনার পাসওয়ার্ড যদি ইউনিক না হয় তবে যে সমস্যাগুলো হতে পারে।

  1. দুর্বল পাসওয়ার্ডের কারণে ভাইরাস সহজেই আক্রমণ করতে পারে
  2. হ্যাকারদের সহজেই হ্যাক করার সুযোগ করে দিতে পারে। এতে আপনার ব্যাংকে রাখা টাকা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য অন্যের হাতে চলে যেতে পারে।
  3. তোমার সহজ প্রসারের কারণে আইসিটি যন্ত্রের প্রকৃত তথ্য নষ্ট করার সুযোগ তৈরী হতে পারে।

আরো পড়ুন » ইয়ারফোন ব্যবহার করলে কানের কি সমস্যা হয় এবং যেভাবে ইয়ারফোন এর সৃষ্ট সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়

কিভাবে একটি ইউনিক পাসওয়ার্ড তৈরি করা যায়

এখন আপনাদের মাথায় প্রশ্ন আসতেছে যে কিভাবে একটি মৌলিক পাসওয়ার্ড তৈরি করা যায়? এটি একটি সৃজনশীল কাজ। আপনার সৃজনশীলতাই আপনার তথ্য বা সফটওয়ারের নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা রক্ষা করতে পারে। তবে এক্ষেত্রে কিছু নিয়ম মেনে চললে কাজটি করতে আমাদের অনেক সুবিধা হবে।

ইউনিক পাসওয়ার্ড তৈরি করার সময় আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে:

  • নিজের বা পরিবারের কারো নাম বা ব্যক্তিগত কোনো তথ্য সরাসরি ব্যবহার না করা। যদিও পাসওয়ার্ডটি মনে রাখার ক্ষেত্রে এটি আমাদের সাহায্য করে। তার পরেও আপনার নাম অথবা আপনার রিলেটিভ কারোর নাম হুবহু পাসওয়ার্ড হিসেবে রাখবেন না।
  • সংখ্যা, চিহ্ন ও শব্দ ব্যবহারের ক্ষেত্রে ছোট হাতের অক্ষর বড় হাতের অক্ষর মিশিয়ে দিলে ভালো হয়। এতে পাসওয়ার্ডটি সম্পর্কে অন্যের ধারণা করা কঠিন হয়ে পড়ে।
  • পাসওয়ার্ডটি যেন অবশ্যই একটু বড় আকারের হয় এটি আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে।
  • পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য আইসিটি যন্ত্র বা ডায়েরি বা অন্য কোথাও পাসওয়ার্ড এর অংশবিশেষ লিখে না রাখা। কারণ হলো অনেক সময় আপনার ডায়েরি বা আইসিটি যন্ত্রটি অন্য কেউ অথবা আপনার বন্ধুকে দিবেন সে হয়তো পাসওয়ার্ডটি দেখে নিতে পারে।
  • পাসওয়ার্ড মনে রাখার জন্য নিজের পছন্দের একটি সংকেত ব্যবহার করা । এটি হতে পারে প্রিয় কবিতা, গল্প, লেখক ,বৈজ্ঞানিক আবিষ্কার বা কোন ঐতিহাসিক ঘটনা ।

এ কাজগুলোর সাথে যদি সৃজনশীলতা যোগ হয় তবে পাসওয়ার্ডটি হয়ে ওঠে একদম ইউনিক পাসওয়ার্ড। পাসওয়ার্ডটি ইউনিক করার জন্য নিচের উদাহরণ এর মত করে আপনি নিজের মত একটি পাসওয়ার্ড বেছে নিতে পারেন।

  • MoriTeChaHiNa_AmiSunDarVhubanE ( প্রাণ-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর)
  • AmAr_AcHe_WateR(হুমায়ূন আহমেদ)

এবং এই ধরনের আপনি যেকোন পাসওয়ার্ড তৈরি করে নিতে পারেন। এবং বিশেষ করে স্পেসিফিকেশন ক্যারেক্টারগুলো ব্যবহার করা অনেক ভালো। অর্থাৎ আলাদা যে সিম্বল গুলো আছে (@#&৳®%©₹€$^°) ইত্যাদি আপনার পাসওয়ার্ড এর সাথে ব্যবহার করে আপনার পাসওয়ার্ডটি আরো শক্তিশালী এবং ইউনিক করে তুলতে পারেন।

এক্ষেত্রে আপনাকে সর্তকতা অবলম্বন করতে হবে। যেন পাসওয়ার্ড অবশ্যই মনে রাখার মত হয় পরবর্তীতে যেন আপনি ভুলে না যান। ক্রাশ এর পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করা  একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এক্ষেত্রে আপনি প্রতি সপ্তাহে একবার করে অথবা প্রতিদিন একবার করে পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে পারেন। বর্তমান ইন্টারনেটে গোপনীয়তা রক্ষার ক্ষেত্রে সকল কোম্পানিগুলোই টু স্টেপ ভেরিফিকেশন নামে একটি নিরাপত্তা সিস্টেম প্রকাশ করেছে। এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার অ্যাকাউন্ট কে সুরক্ষিত রাখতে পারবেন।

ওয়াইফাই পাসওয়ার্ড চুরি ! যেভাবে পাসওয়ার্ড ছাড়া ওয়াইফাই কানেক্ট করবেন ।

তো আজকের মতো এই পর্যন্তই ছিল সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন পরবর্তী আর্টিকেলে আবার দেখা হবে এবং অবশ্যই আর্টিকেলটি ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিবেন এবং আর্টিকেলে কোনো ক্ষেত্রে বুঝতে অসুবিধা হলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন খোদা হাফেজ।

Leave a Comment